Land Acquisition Gopalganj

""খ" ভুক্ত সম্পত্তি ভুমি মন্ত্রনালয়ের সর্বশেষ নির্দেশনা মতে সহকারী কমিশনার(ভূমি) কার্যালয় হতে নামজারী করে অধিগ্রহনকৃত ভূমি/বাড়ির ক্ষতিপূরন গ্রহন করে যাবে।
"ক" তালিকা ভুক্ত সম্পত্তির ক্ষতিপূরন ট্রাইব্যুনালের আদেশ মতে জেলা প্রশাসকের অনুমোদন নিয়ে গ্রহন করা যাবে।
ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল হতে রেকর্ড মামলায় রায় প্রাপ্তির পর জেলা প্রশাসকের অনুমতি নিয়ে ক্ষতিপূরন গ্রহন করা যাবে।
মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ক্ষতিপূরন গ্রহন করা যাবে না ।
রেকর্ডের বাইরে ক্ষতিপূরন দেওয়ার অবকাশ নাই তবে যদি এস এ রেকর্ডীয় মালিক ক্ষতিপূরনের জন্য আমমোক্তার প্রদান করে সে ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরন প্রদান করা যাবে।
স্বত্ববিহীন রেকর্ড দিয়ে ক্ষতিপূরন গ্রহন করা যাবে না
সকল মালিকগণ যদি নিজ নিজ অংশ ভাগ করে ঘরোয়া বন্টননামা/চিটা নকশা করে তবে উক্ত বন্টননামা মতে ক্ষতিপূরন প্রদান করা যাবে তবে শর্ত থাকে যে বন্টননামার কোনো ওয়ারিশ বাদ থাকতে পারবে না এবং কোন অংশীদার তার প্রাপ্ত অংশের চেয়ে বন্টননামায় বেশি জমি ভুক্ত করতে পারবে না
জমির মালিক না হলে ঘরবাড়ি স্থাপনার মালিক হয় না তবে যদি জমির মালিকানা সঠিক থাকে সেক্ষেত্রে জমি/ ঘরবাড়ির মূল্য পৃথক পৃথক অথবা যৌথভাবে গ্রহন করা যাবে
আম-মোক্তার মাধ্যমে ক্ষতিপূরন গ্রহন করা যাবে তবে শর্ত থাকে যে আম-মোক্তার দাতা ও গ্রহীতা উভয়ের মধ্যে রক্তের সম্পর্ক থাকতে হবে এবং উভয়কেই জমির মালিক হতে হবে ।
বিদেশ থেকে হাইকমিশনারের মাধ্যমে আম-মোক্তার নামা প্রদান করলে ক্ষতিপূরন গ্রহন করা যাবে ।
মূল দলিল যদি না থাকে নকল/ সার্টিফাইড কপি দিয়ে ক্ষতিপূরন করা যাবে । সেক্ষেত্রে দলিল হারানোর জন্য থানায় জিডি ও পেপারে হারানো বিজ্ঞপ্তি লাগবে ।